Logo
শিরোনাম :
নবীগঞ্জ পৌর নির্বাচন : বিএনপির প্রার্থী বিজয়ী ॥ ফলাফল প্রত্যাখান আ.লীগের নবীগঞ্জ পৌর নির্বাচন : ভোট দিলেন বিএনপির প্রার্থী ছাবির নবীগঞ্জ পৌর নির্বাচন : ভোট দিলেন আ.লীগ প্রার্থী রাহেল নবীগঞ্জে মধ্যরাতে আ.লীগ বিএনপির সংঘর্ষ : বিএনপির কর্মীর নাড়িভুড়ি বেরিয়ে গেছে গুজবে কান না দিয়ে ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার আহবান-স্বতন্ত্র প্রার্থী সুমনের সরকারের উন্নয়নে শরিক হতে নৌকা মার্কায় ভোট দিন – আ’লীগ মেয়র প্রার্থী রাহেল নবীগঞ্জ পৌর নির্বাচন : আ.লীগ-বিএনপি-স্বতন্ত্র প্রার্থীর ত্রিমুখী লড়াইয়ের আভাস নবীগঞ্জে বিস্ফোরক মামলা : সাবেক এমপি সুজাত মিয়াসহ ১৬ জনের আগাম জামিন যৌতুকের টাকা না দেয়ায় নবীগঞ্জের নাসিমার উপর অমানবিক নির্যাতন প্রার্থীদের প্রচারণায় সরব পৌরসভার জনপদ

নবীগঞ্জ পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডে আলোচনায় কাউন্সিলর প্রার্থী জায়েদ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট / ৩৮২ বার পঠিত
জাগো নিউজ : শুক্রবার, ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০

১৬ জানুয়ারি আসন্ন নবীগঞ্জ পৌর নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রচার প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পাড় করছেন প্রার্থীরা। ইতিমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে মনোনয়ন পত্র যাচাই-বাছাইয়ের কার্যক্রম। এরই মাঝে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে নানা প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন প্রার্থীরা। পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডে প্রার্থীদের মধ্যে আলোচনায় আছেন বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ জায়েদ চৌধুরী।

ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে আসা জায়েদ চৌধুরী চরগাঁও-আক্রমপুর নিয়ে গঠিত ৬নং ওয়ার্ডের উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন।  বিগত ৫ বছরে মানুষের অগাধ বিশ্বাস,আস্থা ভালোবাসা অর্জন করেছেন জায়েদ চৌধুরী।  ছাত্রনেতা থেকে জনপ্রতিনিধি হওয়া তরুণ প্রজন্মের কাউন্সিলর জায়েদ চৌধুরী- পুনরায় তাকে বিজয়ী করতে শরণাপন্ন হচ্ছেন সর্বস্তরের ভোটারদের।

জায়েদ চৌধুরীর নির্বাচনী এলাকা নবীগঞ্জ পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড চরগাঁও-আক্রমপুর এলাকা নিয়ে গঠিত। এই এলাকায় প্রায় ৪ হাজার লোকের বসবাস। এই ওয়ার্ডে নারী, পুরুষ মিলিয়ে মোট ভোটার সংখ্যা প্রায় ১ হাজার ৭শ ৮২। আসন্ন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে প্রার্থীদের প্রচারনায় সরগরম হয়ে উঠেছে প্রতিটি পাড়া মহল্লা। আধুনিক ও উন্নত নাগরিক সুবিধা সম্বলিত একটি মডেল ওয়ার্ড গঠনের অঙ্গীকার নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ জায়েদ চৌধুরী।

নবীগঞ্জ পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী ও বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ জায়েদ চৌধুরী ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জ পৌরসভার ৪র্থ নির্বাচনে ৬নং ওয়ার্ডের ভোটারদের ভোটে নির্বাচিত হন। ওই সময় ৯ জন প্রার্থী কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন। বয়সে সর্বক্ষনিষ্ট হওয়ায় নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে চমক সৃষ্টি করেন জায়েদ চৌধুরী।

কাউন্সিলর প্রার্থী ও বর্তমান কাউন্সিলর মোঃ জায়েদ চৌধুরী ‘জাগো নিউজ’কে বলেন- বিশুদ্ধ পানির সুবিধা নিশ্চত করতে আমার ওয়ার্ডে বিগত ৫ বছরে  প্রায় ২০টি ডিপ টিউবওয়েল স্থাপন করা হয়েছে । শতভাগ বয়স্কভাতা নিশ্চত করেছেন জায়েদ। বিধবা ভাতা ও প্রতিবন্ধী ভাতাও দিয়েছেন অনেককেই। রাস্তাঘাটের উন্নয়ন,স্ট্রীট লাইট স্থাপন,ব্রীজ নির্মাণসহ ৬নং ওয়ার্ডের জনসাধারণের জীবন মান উন্নয়নে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। আসন্ন নির্বাচনে তিনি বিজয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী বলেও জানান।

২০শে মার্চ ১৯৯৭ইং সালে নবীগঞ্জ পৌরসভা প্রতিষ্ঠার পর ওই ওয়ার্ডে কমিশনার/কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন যারাঃ ১৯৯৯ইং সালে নবীগঞ্জ পৌর পরিষদের প্রথম নির্বাচন থেকে কমিশনার পদে বিজয়ী হয়ে ২২ শে মার্চ ১৯৯৯ইং থেকে ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৬ইং পর্যন্ত কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র হিসেবে টানা ৩ মেয়াদে দায়িত্ব পালন করেন বর্তমান মেয়র আলহাজ্ব ছাবির আহমদ চৌধুরী। পৌর পরিষদের চতুর্থ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২০১৫ সালের ৩০ শে ডিসেম্বর। এই নির্বাচনে কাউন্সিলর পদে বিজয়ী হয়ে ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৬ইং থেকে অদ্যাবধি দায়িত্ব পালন করে  আসছেন বর্তমান কাউন্সিল জায়েদ চৌধুরী।


অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
error: কপি করা নিষেধ !
error: কপি করা নিষেধ !