Logo
শিরোনাম :
নবীগঞ্জে চা-শ্রমিকদের মানববন্ধন শোক দিবসে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী বিতরণ হ্যাকারদের কবলে জাগো নিউজের ফেসবুক পেইজ : বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান বাউসা ইউনিয়ন পরিষদকে সৌদি দূতাবাস বানিয়ে অভিনব প্রতারণা ॥ আটক ৩ বাহুবলে গাছ খাওয়ায় ছাগল আটক, এমপি কল দেয়ার পরও ছাড়েনি পুলিশ কানাডায় সড়ক দুর্ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধা সুরঞ্জন দাশ স্ত্রীসহ নিহত গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসে বঙ্গমাতা ও শেখ কামাল এর জন্মবার্ষিকী পালন নবীগঞ্জে মায়ের স্বপ্ন পূরণে হেলিকপ্টারে চড়ে বরের বাড়ি গেলেন সুরভী খোঁজ মিলছে না সিলেট ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতির এবার মাল্টার ভিসা মিলবে ঢাকা থেকেই!

হাতের এই লেখা দিয়ে আসলে কী বোঝাতে চেয়েছেন পরীমনি?

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
জাগো নিউজ : বুধবার, সেপ্টেম্বর ১, ২০২১

নায়িকার মতোই জেল থেকে বের হলেন পরীমনি। হুড খোলা একটি গাড়িতে করে কাশিমপুর থেকে ঢাকায় ফেরার আগে ভক্তদের অনেকের সঙ্গেই হাত মেলান, তাঁদের উদ্দেশে হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানান এই অভিনেত্রী। এ সময় তাঁর হাতের তালুর ওপর মেহেদি দিয়ে লেখা একটি ইংরেজি বাক্য অনেকেরই মনোযোগ আকর্ষণ করে।

বাক্যটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতিমধ্যে তৈরি হয়েছে নানান জল্পনা–কল্পনা ও প্রশ্ন। কথাটি দিয়ে আসলে কী বলতে চাইছেন পরীমনি? ২৮ দিনের কারাবাসে তাঁর কী উপলব্ধি হলো? এমন অনেক প্রশ্ন।

পরীমনির ডান হাতের তালুতে মেহেদি দিয়ে লেখা ছিল ‘ডোন্ট লাভ মি বিচ’। তার নিচে এমন একটা প্রতীক তিনি ব্যবহার করেছেন, শোভন বাংলায় তার অর্থ হতে পারে ‘গোল্লায় যাও’। এই সব কথা ও প্রতীক দিয়ে আসলে কী বলতে চাইছেন পরীমনি? কাকে বিচ বলতে চাইছেন? রাগে, অভিমানে নিজেকেই কি ‘বিচ’ বলে গালি দিয়েছেন পরীমনি? বলতে চেয়েছেন, ‘আমাকে ভালোবেসো না, আমি খারাপ’? নাকি চারপাশের মানুষদের উদ্দেশে শব্দটা ব্যবহার করেছেন এই ঢালিউড চিত্রনায়িকা। বলার চেষ্টা করেছেন, ‘আমাকে ভালোবাসিস না।’

গ্রেপ্তারের পর আশপাশের কাছের মানুষদের হয়তো হাড়ে হাড়ে চিনেছেন পরীমনি। দীর্ঘ এই জেলযাত্রায় সুসময়ের অনেকেই তাঁর পাশে ছিলেন না।

এমনকি তাঁদের অনেকেই পরীমনির কর্মকাণ্ডের কঠোর সমালোচনা করেছেন। নানাভাবে তাঁকে অপরাধী প্রমাণের চেষ্টা করেছেন তাঁরা। তাঁর প্রিয় চলচ্চিত্র পরিবারের অনেক অভিনয়শিল্পী ও দীর্ঘদিনের সহকর্মী পর্যন্ত তাঁর ব্যাপারে উদাসীন ছিলেন। তাঁরা চুপ ছিলেন।

পরীমনির অভিভাবক সংগঠন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ভূমিকাও ছিল নেতিবাচক। সমিতির নেতারা তাঁর আইনি সাজা হওয়ার আগেই তাঁকে শাস্তি দিয়েছেন। সংগঠন থেকে সাময়িকভাবে সদস্যপদ স্থগিত করেছেন।

এফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর বলেন, পরীমনির ঘটনাটি চলচ্চিত্র তথা শিল্পীসমাজের জন্য বিব্রতকর। কোনো অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয় না শিল্পী সমিতি। তাঁদের মামলা চলমান থাকায় পরীমনির সদস্যপদ সাময়িকভাবে স্থগিত করা হলো। এ ছাড়া বিভিন্ন সময় সংগঠনের অনেকেই নানাভাবে বলার চেষ্টা করেছেন, পরীমনির এই শাস্তি প্রাপ্য ছিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !