Logo
শিরোনাম :
পাঁচ হাজার বন্যার্তদের মুখে খাবার তোলে দিল ‘ইউনাইটেড নবীগঞ্জ’ বাংলাদেশে স্বপ্নের পদ্মা সেতু’র উদ্বোধন, গ্রিসে উদযাপন করল দূতাবাস নবীগঞ্জে বন্যার পানিতে ভেসে আসলো যুবকের লাশ পদ্মা সেতু উদ্বোধন উপলক্ষে নবীগঞ্জ থানার আনন্দ র‌্যালী শ্রেষ্ঠ হিসেবে শুদ্ধাচার পুরস্কারে জন্য মনোনীত হলেন নবীগঞ্জের ইউএনও শেখ মহিউদ্দিন নবীগঞ্জে বন্যার্তদের মাঝে আব্দুর রহমান ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহায়তা প্রদান দেশে বন্যায় মানুষ কষ্টে আছে : সরকার পদ্মাসেতু উদ্বোধনে আমোদ-ফুর্তিতে ব্যস্ত-ড. রেজা কিবরিয়া ‘শুকনো জায়গায় মাকে কবর দিও’ নবীগঞ্জে উল্টে গেলো বন্যার্তদের খাদ্যবাহী ট্রাক নবীগঞ্জে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে বন্যা : শতাধিক গ্রাম প্লাবিত : সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান

হাইওয়ে পুলিশের ভ্যান চাপায় সিএনজি চালক নিহত : পুলিশের মোটর সাইকেলে অগ্নি সংযোগ

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
জাগো নিউজ : মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলায় হাইওয়ে পুলিশের ভ্যান চাপায় তোফায়েল মিয়া (২২) নামে এক সিএনজি (অটোরিকশা) চালক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ৩ জন। এসময় ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে স্থানীয় সিএনজি শ্রমিক ও সাধারণ মানুষ । বিক্ষোভ চলাকালে ট্রাফিক পুলিশের একটি মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীরা।

মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে সাড়ে ১২টার দিকে বাহুবল উপজেলার বাগান বাড়ি পয়েন্টে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত অটোরিকশা চালক তোফায়েল মিয়া হবিগঞ্জ সদর উপজেলার সুলতানশী গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে।

এ ঘটনায় আশংকাজনক অবস্থায় ৩ জনকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। আহতরা হলেন- সিএনজি যাত্রী বাহুবল উপজেলার দৌলতপুর গ্রামের আব্দুল হেকিমের পুত্র আজগর আলী (৬০) ও একই গ্রামের এনামুল হকের স্ত্রী মাসুদা আক্তার (৩৫) এবং হবিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মী মুসলিম উদ্দিন (৪০)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়- মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে তোফায়েল মিয়া যাত্রীসহ সিএনজি অটোরিকশা (হবি-থ-১১-৭৪৪৮) নিয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক হয়ে বাহুবল বাজারে আসার পথিমধ্যে বাহুবল উপজেলা সদর সংলগ্ন বাগান বাড়ি পয়েন্টে হাইওয়ে পুলিশের ব্যারিকেড দ্রুতগতিতে অতিক্রম করেন। এ সময় হাইওয়ে পুলিশের একটি দল পুলিশ ভ্যান নিয়ে সিএনজিকে ধাওয়া দেয়। পরে কিছুদূর যাওয়ার পর পুলিশভ্যান ওই অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুছড়ে যায় এবং ঘটনাস্থলেই সিএনজি চালক তোফায়েল নিহত হয়।

এ ঘটনার পর বিক্ষোদ্ধ শ্রমিক ও জনতা ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে। এ সময় ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মিজানুর রহমান মোটরসাইকেল যোগে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে বিক্ষোব্ধ শ্রমিকরা তার মোটরসাইকেলটি পুড়িয়ে দেয়। মহাসড়ক অবরোধের কারণে রাস্তার দুইপাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয় । পরে পুলিশ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করলে দুপুর দেড়টার দিকে বিক্ষোভকারীরা অবরোধ তোলে নেয়।

এ ব্যাপারে বাহুবল মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ কামরুজ্জামান বলেন- ‘দুপুর দেড়টার দিকে বিক্ষোব্ধ শ্রমিক ও স্থানীয়দের সাথে আলাপ আলোচনা করার পর তারা অবরোধ তোলে নেয়। বর্তমানে মহাসড়কে যান চলাচল স্বভাবিক রয়েছে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !