Logo
শিরোনাম :
নোয়াগাঁও তাণ্ডব : ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে উপজেলা বিএনপি নোয়াগাঁও’র ১৩টি বাড়ি-ঘরে লুটপাট ও অগ্নিসংযোগকারীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন নবীগঞ্জে পুলিশের বিরুদ্ধে আসামী গ্রেফতার না করার অভিযোগ ! ৬৫ বছরে ফের বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন রেলমন্ত্রী ইমদাদুর রহমান মুকুলসহ গ্রেফতারকৃতদের মুক্তির দাবিতে প্রবাসীদের প্রতিবাদ সভা নবীগঞ্জে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৮ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা নয়া সেনাপ্রধান শফিউদ্দিন আহমেদ বৃক্ষরোপণ করে প্রধানমন্ত্রীর পুরষ্কার পেলেন জোহরা মমতাজ নোয়াগাঁও গ্রামে তাণ্ডব : আ.লীগের সাবেক সভাপতি মুকুল ২ দিনের রিমান্ডে ১৯ বছর বয়সে ভয়ষ্কর হয়ে উঠেছেন তন্নী !

হবিগঞ্জ শেখ হাসিনা মেডিকেল অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে মামলা

জাগো নিউজ
জাগো নিউজ : সোমবার, ১৭ আগস্ট, ২০২০

হবিগঞ্জ শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে কেনাকাটায় অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে অধ্যক্ষ ডা. মো. আবু সুফিয়ানসহ তিনজনের বিরুদ্ধে পৃথক মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

দুটি মামলার অপর আসামিরা হলেন- ঢাকার মোহাম্মদপুরের নির্ঝরা এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী আফসানা ইসলাম কাকলী এবং ঢাকার ধানমন্ডি এলাকার পুনম ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের সত্ত্বাধিকারী এসএম নজরুল ইসলাম নতুন।

দুই মামলাতেই শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মো. আবু সুফিয়ানকে প্রধান আসামি করা হয়েছে।

দুদকের ফেসবুক পেইজে প্রকাশিত তথ্যে জানা যায়, রোববার দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. সহিদুর রহমান বাদী হয়ে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. মো. আবু সুফিয়ান এবং নির্ঝরা এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী আফসানা ইসলাম কাকলীর বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, আসামিরা অসৎ উদ্দেশ্যে একে অপরের সহায়তায় অন্যায়ভাবে অর্থ লাভের জন্য প্রতারণা, অপরাধমূলক বিশ্বাসভঙ্গ ও ক্ষমতার অপব্যবহারের মাধ্যমে প্রকৃত মূল্যের চেয়ে উচ্চ মূল্য দেখিয়ে বইপত্র কিনেছেন।

এভাবে তারা সরকারের ১ কোটি ২৯ লাখ ৩৩ হাজার ১২১ টাকা ক্ষতিসাধনপূর্বক আত্মসাত করে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/১০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় একটি মামলা করা হয়েছে।

এভাবে তারা সরকারের দুই কোটি ১৪ লাখ ৪৭ হাজার ৭০০ টাকা ক্ষতিসাধনপূর্বক আত্মসাৎ করে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করেছেন। আসামিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪০৯/৪২০/১০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় মামলাটি করা হয়।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত ইচ্ছায় ও হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি মো. আবু জাহিরের প্রচেষ্টায় ২০১৫ সালের ১ জানুয়ারি কলেজটি অনুমোদন পায়। ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষে ৫১ জন শিক্ষার্থী ভর্তির মাধ্যমে কলেজটির আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ
ThemeCreated By ThemesDealer.Com
error: কপি করা নিষেধ !
error: কপি করা নিষেধ !