Logo

সিলেটের বাজারজুড়ে মৌসুমী ফলের চড়া দাম

জাগো নিউজ
জাগো নিউজ : মঙ্গলবার, মে ১৯, ২০২০

image_pdfimage_print

নিজস্ব প্রতিবেদক,জাগো নিউজ : সিলেটের বাজারে উঠতে শুরু করেছে হরেক রকমের মৌসুমী ফল। আম, কাঁঠাল, লিচু, জামরুল ও আনারসে ভরে গেছে পুরো শহর। একই সাথে রয়েছে তরমুজ, বাঙ্গিসহ দেশি-বিদেশি নানা ধরণের ফলও।

এদিকে, মৌসুমী ফল বাজারে আসতে শুরু করলেও সিলেটে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে এগুলো। বিশেষ করে করোনা পরিস্থিতির দোহাই দিয়ে ক্রেতাদের কাছ থেকে বেশিই দাম নিচ্ছেন বিক্রেতারা। তবে রমজান মাস হওয়াতে বেশি দাম দিয়ে হলেও মধুমাসের ফলের স্বাদ নিচ্ছেন অনেকে।

বিক্রেতারা জানালেন, রাজশাহীতে সবেমাত্র আম ভাঙা শুরু হওয়াতে আমের দাম একটু বেশি। আর লকডাউন পরিস্থিতিতে রাজশাহী অঞ্চলের লিচু আসছেনা, যে কারণে লিচুর পরিপূর্ণ স্বাদ পেতে আরও কিছুদিন অপেক্ষায় থাকতে হবে সিলেটবাসীকে এবং দামও আপতত কমছে না। তাদের মতে, বাজারে আম ও লিচু যত বেশি আসবে দামও তত কমবে।
বিক্রেতারা বলছেন, ঈদের পরে রাজশাহীর আম বেশি আসার সম্ভাবনা রয়েছে, তখন দামও কমে যাবে। একইভাবে মৌসুমী অন্যান্য ফলের দামও কমবে বলে জানান বিক্রেতারা।

বিভিন্ন ফলের দোকান ঘুরে দেখা গেছে, গুটি আম প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১০০ থেকে ১২০ টাকায়, বড় লিচুর প্রতি আটি বিক্রি হচ্ছে ২০০ থেকে ৩০০ টাকায়, কাঁঠাল আকারভেদে ১৫০ থেকে ৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, আনারস প্রতি হালি ৮০ টাকা থেকে ১৫০ টাকায় এবং তরমুজ আকারভেদে ১৫০ থেকে ৩০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এছাড়া ফিজি আপেল প্রতিকেজি ১৫০ থেকে ২৪০, গালা আপেল ১৮০ থেকে ২৭০, সবুজ আপেল ২০০ থেকে ২৫০ টাকা, আঙ্গুর লাল ৩০০ থেকে ৩৮০ এবং ডালিম প্রতিকেজি ২২০ থেকে ২৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে সিলেটের বাজারে।

গতকাল সোমবার বন্দরবাজারে ফল কিনতে আসা এক ক্রেতা জানালেন, ‘সবেমাত্র মৌসুমী ফল বাজারে উঠেছে। তাই দাম বেশি হলেও খেতে ইচ্ছে হলো, তাই কিনছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !