Logo
শিরোনাম :
হবিগঞ্জের শ্রেষ্ঠ পুলিশ পরিদর্শক মনোনীত হয়েছেন শামছ উদ্দিন খান নবীগঞ্জে স্কুলছাত্রী আত্মহত্যার রহস্য উদঘাটন ও দোষীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন নবীগঞ্জে ছাত্রদলের কমিটি ঘোষণার ২৪ ঘন্টার মধ্যে লন্ডন থেকে স্থগিত বিজয় দিবসে বাংলাদেশ-গ্রিসের পতাকার রঙে আলোকসজ্জা ! পরিছন্ন রাজনীতিবিদ হিসেবে ফরিদ গাজী আজীবন বেঁচে থাকবেন মানুষের হৃদয়ে খেলা শিখে আসেন, কাদেরকে গয়েশ্বর এক হাজার নেতা-কর্মীকে গুম করেছে আ.লীগ: ইলিয়াসপত্নী লুনা উদ্দেশ্য একটাই হাসিনার কবল থেকে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা : জি কে গউছ মিছিল-শ্লোগানে মুখরিত সিলেট গনসমাবেশস্থল ‘ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটাতে হবে’

সাদিপুরে মামুন পরিবহণের ধাক্কায় প্রাণ হারালেন সিএনজির চার যাত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
জাগো নিউজ : বৃহস্পতিবার, আগস্ট ১৩, ২০২০

image_pdfimage_print

সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক যেন হয়ে উঠেছে মৃত্যুকূপ। বৃহস্পতিবারও ঘটেছে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা। এ দুর্ঘটনায় চারজনের মৃত্যু ঘটেছে। এর মধ্যে দুই শিশু ও এক নারী রয়েছেন। অপরজন সিএনজি অটোরিকশা চালক।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট) রাত ৮টার দিকে মহাসড়কের ওসমানীনগর উপজেলার সাদিপুরে মামুন পরিবহনের একটি বাস ও সিএনজি অটোরিকশার মধ্যে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেছে।

নিহতরা হলেন, অটোরিকশা চালক জুনেদ মিয়া (২৮), হামিদা বেগম (৩৬) করিমা বেগম (৪) ও আরফা (১২)। এদিকে নিহত অটোরিকশা চালক জুনেদ স্থানীয় মোবারকপুর গ্রামের আলা উদ্দিনের পুত্র। এছাড়া নিহত অন্য তিনজন গোয়ালাবাজার উপজেলার ব্রাহ্মণগ্রামের কমরু মিয়ার পরিবারের সদস্য।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা সিলেটগামী মামুন এন্টারপ্রাইজের একটি যাত্রীবাহী বাস শেরপুরগামী  সিএসজি চালিত অটোরিকশাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে অটোরিকশার বেশ কয়েকজন যাত্রী হতাহতের ঘটনা ঘটে। পরে তাদেরকে উদ্ধার করলে সেখানেই দুই জনের মৃত্যু হয়। বাকীদের সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করা হয় ।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ওসমানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল বণিক ‘জাগো নিউজ’কে- জানান, একটি বাসের সঙ্গে সিএনজি-চালিত একটি অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই একজনের মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয় ব্যক্তিদের সহযোগিতায় হতাহতদের উদ্ধার করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে হাসপাতালে শিশুসহ আরও তিনজনের মৃত্যু হয়।

এছাড়া সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ পরিদর্শক (এসআই) ফারুক আহমদ ‘জাগো নিউজ’কে বলেন, বর্তমানে হাসপাতালে তিনজন গুরুতর আহত অবস্থায় চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাদের মধ্যে দুইজন শিশু ও একজন নারী রয়েছেন। তারা হলেন, হামিদা বেগম (২.৫), আফসানা (৭) ও খালেদা বেগম (৩০)।

এদের মধ্যে আফসানার বাড়ি মৌলভীবাজারের মধ্যনগর এলাকায়। সে সিলেটের গোয়ালাবাজার উপজেলার ব্রাহ্মণগ্রামে তার খালার বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলো বলে জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !