Logo

মরুর বুকে বিশাল এক ফুলের রাজ্য ”দুবাই মিরাকল গার্ডেন”

মতিউর রহমান মুন্না, আরব আমিরাত থেকে
জাগো নিউজ : রবিবার, জানুয়ারি ২৪, ২০২১

ডেভিড রস বলেছিলেন- ‘ভালোবাসা আর যত্ন দিয়ে মরুভূমিতেও ফুল ফোটানো যায়’। তবে এই বিখ্যাত উক্তিটি এখন আর শুধু বইয়ের পাতাতেই সিমাবদ্ধ নেই। দুবাই সরকারের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় সেটিই বাস্তব রূপ পেয়েছে। ভালবাসা আর অতিযত্নে এমন অসম্ভবকেই সম্ভব করা হয়েছে দুবাইয়ে। মরুভুমির উত্তপ্ত বালিতে যেখানে গাছ খুঁজে পাওয়াটা দুষ্কর, সেখানে গড়ে তোলা হয়েছে ফুলের বাগান। নাম দেয়া হয়েছে ‘মিরাকল গার্ডেন’।

২০১৩ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ভ্যালেন্টাইন ডে’তে যাত্রা শুরু করে ‘মিরাকল গার্ডেন’। এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফুলের বাগান। এর অবস্থান দুবাইয়ের শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ সড়কের পাশে। মরুভূমির মধ্যে নির্মিত এই বাগানের আয়তন ৭২ হাজার বর্গমিটার। প্রকৃতিপ্রেমীদের কাছে এটি যেন এক স্বর্গক্ষেত্র।

এবার বেশ কয়েকটি থিম নিয়ে প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছে এই বাগান। ‘মিরাকল গার্ডেন’ এখন বিশ্ব পর্যটকদের কাছে দারুণ আকর্ষণীয় এক স্থান। সব বয়সের মানুষের মনটাকে নিমিষেই ভালো করে দেয়।

ইতোমধ্যে মিরাকল গার্ডেনের ফুলের তৈরি ঘড়ি গিনেস বুকে নাম লেখিয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ফুলের ঘড়ি হিসেবে। ৪ কোটি ৫০ লাখ ফুলের গাছ নিয়ে যাত্রা শুরু করা দুবাই মিরাকেল গার্ডেনে বর্তমানে ফুল গাছের সংখ্যা ১৫ কোটি। নানা রঙের ফুল দিয়ে ভিন্ন ভিন্ন সাজে নানা ধরনের আকৃতিতে ফুলগুলোকে উপস্থাপন করা হয়েছে। ফুলগাছগুলোকে বিভিন্ন আকৃতি দিয়ে দর্শকদের আনন্দ দেয়া হয়।

বাগানে ফুল দিয়ে তৈরী করা হয়েছে পুরনো নানা মডেলের গাড়ি, বরফের ঘর, পিরামিড, চলমান পানির টেপ, ফুল দিয়ে তৈরি ময়ূরপঙ্খী, প্রজাপতি, ফুলের জাহাজ, ফুলের বিছানা, ফুলের পাহাড়, ফুলের ঘোড়ার গাড়ি, ফুলের বাড়ি, ফুলের ঘর, ফুলের সাগর, ফুলের দোলনা, ফুলের সবচেয়ে বড় দেয়াল, ফুলের ঝর্ণধারা মানবাকৃতি সহ বিভিন্ন আকৃতি দেয়া হয়েছে যা ঋতুভিত্তিক রং বদলায়।
ফুল দিয়ে তৈরি করা হয়েছে আরব আমিরাতের জাতীয় পাখির আকৃতি। কলস থেকে পানির মতো করে ফুল ঝড়ছে এমনও অনেক চোখ জুড়ানো দৃশ্য চোখে পড়ে বাগানটিতে। এছাড়া ফুলের দুর্গ, মিকি মাউস, রয়েছে ফুল দিয়ে সাজানো এমিরেটস এয়ারলাইন্সের এয়ারবাস যা সত্যিই দর্শনার্থীদের মুগ্ধ করে।

নয়নাভিরাম এ বাগানের সৌন্দর্য উপভোগ করতে টিকেটের মুল্য রাখা হয়েছে বড়দের জন্য ৫৫ দিরহাম, বাংলাদেশি টাকায় যা প্রায় ১৩২০ টাকা আর ছোটদের জন্য ৪০ দিরহাম বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ৯৬০ টাকা। ২ বছরের কম বয়সীদের প্রবেশ ফ্রি। ‘মিরাকল গার্ডেন’ চালু করার প্রথম দিকে বড়দের প্রবেশ মুল্য ২০ দিরহাম আর ৫ বছরের কম বয়সী ছোটদের জন্য ফ্রি থাকলেও দর্শনার্থীদের চাপ বাড়তে থাকায় কর্তৃপক্ষ প্রতি বছর প্রবেশ মুল্য বাড়িয়ে দিচ্ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ
ThemeCreated By ThemesDealer.Com
error: কপি করা নিষেধ !
error: কপি করা নিষেধ !