Logo
শিরোনাম :
২৪ ঘন্টায় করোনায় ৫৪ মৃত্যু : শনাক্ত ৩ হাজারের বেশি চারদিনেও হদিস মেলেনি ‘ইসলামী বক্তা’ আবু ত্ব-হা আদনানের দল ব্যবস্থা নিলেও আমি নির্বাচন করবো – শফি আহমদ চৌধুরী নবীগঞ্জে স্বামী-স্ত্রী’কে কোপানোর মামলায় ৫ আসামীর জামিন নামঞ্জুর পরীমনির মামলার প্রধান আসামি নাসিরসহ পাঁচজন গ্রেফতার পরীমনিকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা : সংবাদ সম্মেলন নবীগঞ্জে বাবা-মাকে নির্যাতন : ছেলের ১ বছরের কারাদণ্ড ‘মাজারের টাকা সুরক্ষা দিচ্ছে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের আসামীদের’ – ব্যারিস্টার সুমন নোয়াগাঁও তাণ্ডব : ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে উপজেলা বিএনপি নোয়াগাঁও’র ১৩টি বাড়ি-ঘরে লুটপাট ও অগ্নিসংযোগকারীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে সাড়ে তিন বছরে অভূতপূর্ব অগ্রগতি হয় বাংলাদেশের- এমপি আবু জাহির

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
জাগো নিউজ : মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১, ২০২০

বঙ্গবন্ধুর যুগান্তকারী আহবানে সাড়া দিয়ে বাংলার আপামর জনগণ মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। বঙ্গবন্ধু কেবল স্বাধীনতার মহানায়কই ছিলেন না, জাতি গঠনের কুশলী কারিগরও ছিলেন। তাঁর নেতৃত্বে মাত্র সাড়ে তিন বছরে স্বাধীনতা-উত্তর বাংলাদেশ অবকাঠামো ও সমাজ বিনির্মাণের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব অগ্রগতি অর্জন করে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লোকড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত আলোচনা সভা এবং মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এসব কথা বলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহির এমপি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রূপকল্প ২০২১ ও রূপকল্প ২০৪১-এর আওতায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন। এজন্য আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকেও কাজ করতে হবে। এ সময় তিনি জাতির পিতার জীবনীর বিভিন্ন দিকের ওপর আলোকপাত করেন। উপস্থিত সবাইকে যাঁর যাঁর নিজ নিজ অবস্থান থেকে জাতির পিতার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে কাজ করে অবদান রাখার আহ্বান জানান এমপি আবু জাহির।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিক আলীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আহমদ আলীর পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আক্রাম আলী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ মোত্তালিব, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মুকিত, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ আব্বাস।

বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শেখ সেবুল আহমেদ, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সাদিকুর রহমান মুকুল, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী সুজাত, ছাত্রলীগ নেতা লিটন তালুকদার, লিমন প্রমুখ।

সভার শুরুতেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহীদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও তাবারুক বিতরণের মধ্য দিয়ে আয়োজনের সমাপ্তি ঘটে।

বঙ্গবন্ধুর যুগান্তকারী আহবানে সাড়া দিয়ে বাংলার আপামর জনগণ মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। বঙ্গবন্ধু কেবল স্বাধীনতার মহানায়কই ছিলেন না, জাতি গঠনের কুশলী কারিগরও ছিলেন। তাঁর নেতৃত্বে মাত্র সাড়ে তিন বছরে স্বাধীনতা-উত্তর বাংলাদেশ অবকাঠামো ও সমাজ বিনির্মাণের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব অগ্রগতি অর্জন করে।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে হবিগঞ্জ সদর উপজেলার লোকড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত আলোচনা সভা এবং মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এসব কথা বলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহির এমপি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রূপকল্প ২০২১ ও রূপকল্প ২০৪১-এর আওতায় বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন। এজন্য আওয়ামী লীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকেও কাজ করতে হবে। এ সময় তিনি জাতির পিতার জীবনীর বিভিন্ন দিকের ওপর আলোকপাত করেন। উপস্থিত সবাইকে যাঁর যাঁর নিজ নিজ অবস্থান থেকে জাতির পিতার আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতিতে কাজ করে অবদান রাখার আহ্বান জানান এমপি আবু জাহির।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিক আলীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আহমদ আলীর পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের নেতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আক্রাম আলী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ মোত্তালিব, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মুকিত, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ আব্বাস।

বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি শেখ সেবুল আহমেদ, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, জেলা ছাত্রলীগ নেতা সাদিকুর রহমান মুকুল, সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী সুজাত, ছাত্রলীগ নেতা লিটন তালুকদার, লিমন প্রমুখ।

সভার শুরুতেই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহীদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। পরে মিলাদ মাহফিল, দোয়া ও তাবারুক বিতরণের মধ্য দিয়ে আয়োজনের সমাপ্তি ঘটে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ
ThemeCreated By ThemesDealer.Com
error: কপি করা নিষেধ !
error: কপি করা নিষেধ !