Logo
শিরোনাম :
বাংলা একাডেমীর সাহিত্য পুরস্কার পাচ্ছেন মেট্রোপলিটন ইনভার্সিটির প্রফেসর সুরেশরঞ্জন হবিগঞ্জে ময়নামতি রেজিমেন্টের র‌্যালি অনুষ্ঠিত স্থানীয় ছাত্র-ছাত্রীদের জন্যে শেভরনের বৃত্তি চলমান মরুর বুকে বিশাল এক ফুলের রাজ্য ”দুবাই মিরাকল গার্ডেন” জামিআ আরাবিয়া দিনারপুর মাদ্রাসার ৬৭তম ইসলামী সম্মেলন অনুষ্ঠিত আসছে শফিক তুহিন ও লায়লার কন্ঠে নতুন গান ‘পাগল’ নবীগঞ্জ পৌর নির্বাচনে সূক্ষ্ম কারচুপির মাধ্যমে ফলাফল পরিবর্তন করা হয় – উপজেলা যুবলীগ নবীগঞ্জে শিক্ষক সমিতির এক নেতার বিরুদ্ধে কাউন্সিলর প্রার্থীর টাকা নেয়ার অভিযোগ হবিগঞ্জে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ঘর পেলো ৩২৫টি পরিবার নবীগঞ্জে ৭ কেজি গাজাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

নিহতদের মধ্যে ৩জন করোনা পজিটিভ ২জন নেগেটিভ রোগী: ফায়ার ডিজি

জাগো নিউজ / ৩৬৪ বার পঠিত
জাগো নিউজ : বুধবার, ২৭ মে, ২০২০

করেসপন্ডেন্ট,জাগো নিউজ: রাজধানীর গুলশানে অবস্থিত ইউনাইটেড হাসপাতালে করোনা আইসোলেশন ইউনিট (তাঁবু গেড়ে স্থাপিত) এ অগ্নিকাণ্ডস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. সাজ্জাদ হোসাইন বলেছেন, ‘আমরা পাঁচজনের মরদেহ উদ্ধার করেছি। যারা মারা গিয়েছেন তাদের মধ্যে ৩জন করোনা পজিটিভ রোগী ও ২জন করোনা নেগেটিভ রোগী। তারা হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। এ ঘটনায় আর কোনো হতাহত বা আহত নেই। অন্যান্য ইউনিটের যেসব রোগী রয়েছেন, তাদের কোনো সমস্যা হয়নি, তারা অক্ষত আছেন।’

বুধবার (২৭ মে) রাতে অগ্নিকাণ্ডের পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে তিনি এ কথা বলেন।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের মহাপরিচালক বলেন, ৯টা ৫৫ মিনিটে আগুনের সংবাদ পেয়ে ১০টা ৪ মিনিটে ফায়ার সার্ভিসের প্রথম ইউনিট মূল ভবনের পেছন দিকে এক্সটেনশন অংশে লাগা আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। তাদের ফায়ার হাইড্রেন্ট ছিল তবে আমরা নিজেরাই সরঞ্জাম নিয়ে এসেছিলাম। আমাদের সরঞ্জাম দিয়েই আগুন নিয়ন্ত্রণ করেছি।

অগ্নিনিরাপত্তা ব্যবস্থার বিষয়ে ডিজি বলেছেন, ‘অগ্নিনিরাপত্তা ব্যবস্থা ওইভাবে ছিল না। কিন্তু ইউনিটের কাছেই ফায়ার হাইড্রেন্ট ছিল। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বোধ হয় ফায়ার হাইড্রেন্ট ব্যবহার করতে পারেনি।

ইউনাইটেড হাসপাতালের আগুনের নেভানোর সক্ষমতা নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা এই হাসপাতালে মহড়া করেছি, যেই স্থানটিতে আগুন লেগেছে মহড়ার জন্য এই জায়গাটিও ব্যবহার করেছি।’

অবশ্য হাসপাতালের কমিউনিকেশন অ্যান্ড বিজনেস ডেভলপমেন্ট বিভাগের প্রধান ডা. সাগুফা আনোয়ার দাবি করেন, বৈদ্যুতিক শট-সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। তিনি বলেন, আগুন লেগেছে হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন সেন্টারে। করোনা রোগীদের জন্য পাঁচ শয্যার একটি আইসোলেশন সেন্টার খোলা হয়েছে মূল ভবনের বাইরে একটি একতলা ভবনে। সেখানে চারজন রোগী ভর্তি ছিলেন। রাতে হঠাৎ সেখানে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগে।


অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
error: কপি করা নিষেধ !
error: কপি করা নিষেধ !