Logo
শিরোনাম :
আরব আমিরাতে বাংলাদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেবপাড়া ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহার নগদ অর্থ বিতরণ করলেন এমপি মিলাদ গাজী নবীগঞ্জের ইনাতগঞ্জ ইউনিয়নে প্রধানমন্ত্রীর উপহার নগদ অর্থ বিতরণ মানবসেবায় প্রবাসীদের অবদান অনস্বীকার্য – এমপি মিলাদ গাজী নবীগঞ্জের মাদ্রাসা শিক্ষক মুকিত জঙ্গী সংগঠন আনসার আল ইসলামের সদস্য ! স্কটিশ পার্লামেন্টে প্রথম বাংলাদেশী এমপি নির্বাচিত হলেন নবীগঞ্জের ফয়ছল চৌধুরী ইফতারির জন্য নবীগঞ্জের শরিফাকে ‘হত্যা’, স্বামী-শ্বাশুড়ি আটক নবীগঞ্জ পৌরসভায় ১৫শ অসহায় মানুষের মাঝে প্রধানমন্ত্রী অর্থ সহায়তা বিতরণ বাউসা ইউনিয়নে ১৫শ মানুষের মাঝে ৪৫০ টাকা করে নগদ অর্থ সহায়তা বিতরণ আউশকান্দিতে ৫শ অসহায়দের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর অর্থ সহায়তা বিতরণ

নবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন : গৃহদ্বন্দ্বে পুড়ছে বিএনপি !

ছনি চৌধুরী / ৭৫৯ বার পঠিত
জাগো নিউজ : মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০

নবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির দটি বলয়ের গ্রুপিং ব্যাপক আকার ধারণ করেছে। দিনতো-দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে দ্বন্দ্ব। একাধিক সভা করেও সমাধান করা যাচ্ছেনা গ্রুপিং। আলাদা আলাদা সভায় পাল্টাপাল্টি দুটি বলয়ের পৃথক প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে।

জানা যায়- নবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে গত (৫ ডিসেম্বর) উপজেলা ও পৌর বিএনপির (একাংশ) এর সভায় উপজেলা বিএনপির আহবায়ক সরফরাজ চৌধুরী,সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মুজিবুর রহমান সেফুসহ পৌর ও উপজেলা বিএনপির একাংশের যৌথ সুপারিশের ভিত্তিতে পৌর বিএনপির সদস্য আনোয়ার হোসেন মিঠুকে একক প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয়।

অপরদিকে গত (৭ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জ উপজেলা ও পৌর বিএনপি (অপরাংশ) এর যৌথ সভায় নবীগঞ্জ পৌর বিএনপির আহবায়ক ছালিক আহমেদ চৌধুরী, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল আলীম ইয়াছিনী, ২য় যুগ্ম আহবায়ক জয়নাল আবেদীনসহ যৌথ স্বাক্ষরিত পত্রে বিএনপির একক প্রার্থী হিসেবে বর্তমান মেয়র ও পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ছাবির আহমদ চৌধুরী নাম ঘোষণা করা হয়।

উভয় বলয়ের সভা শেষে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির কাছে বর্তমান মেয়র ও পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ছাবির আহমদ চৌধুরী ও পৌর বিএনপির সদস্য আনোয়ার হোসেন মিঠু’র নাম প্রেরণ করা হয়। এর ফলে পাল্টাপাল্টি প্রার্থী ঘোষণা ও বিএনপির দ্বন্দ্ব চরম আকার ধারণ করে। গ্রুপিং ও বিরোধ নিরসনের লক্ষ্যে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক জি.কে গউছ বিরোধ মীমাংসার উদ্যোগ গ্রহন করেন। গত(১২ডিসেম্বর) শনিবার রাতে জিকে গউছের হবিগঞ্জ শহরতলীর রাজনগরস্থ বাসভবনে নবীগঞ্জ উপজেলা ও পৌর বিএনপির নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে রুদ্ধদ্বার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

সূত্রে প্রকাশ- অনুষ্ঠিত রুদ্ধদ্বার বৈঠকে কোনো সিদ্ধান্ত না আসায় শেষ মুহুর্তে জি.কে গউছ ও নবীগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সিনিয়র নেতৃবৃন্দ সহকারে বোর্ড গঠন করা হয়। বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বর্তমান মেয়র ছাবির আহমদ চৌধুরীকে পরবর্তী দলীয় কাউন্সিলে অংশগ্রহণ না করা শর্ত-সাপেক্ষে দ্বন্দ্ব নিরসনের প্রস্তাব দেয়া হয়। সেই শর্ত মেনে নেননি ছাবির আহমদ চৌধুরী। পরবর্তীতে কোনো সমাধান ছাড়াই বৈঠক শেষ হয়।

গতকাল (১৪ ডিসেম্বর) মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তালিকা হবিগঞ্জ জেলা বিএনপি থেকে কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে । নবীগঞ্জ পৌর বিএনপির আহবায়ক ও দুই যুগ্ম আহবায়কের সুপারিশের প্রেক্ষিতে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির আহবায়কের সুপারিশ সহকারে একক প্রার্থী হিসেবে বর্তমান পৌর মেয়র ছাবির আহমদ চৌধুরীর নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবুল হাশেম “জাগো নিউজ” কে বলেন- পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থী নির্ধারণের নিয়ম অনুযায়ী নবীগঞ্জ পৌর বিএনপির আহবায়ক, ১ম ও ২য় যুগ্ম আহবায়ক স্বাক্ষরিত পত্রে বিএনপির একক প্রার্থী হিসেবে বর্তমান মেয়র ছাবির আহমদ চৌধুরীর নাম প্রস্তাব করা হহয়। সেই অনুযায়ী গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে আমি সুপারিশ পত্রে স্বাক্ষর করেছি। নবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির একক প্রার্থী হিসেবে ছাবির আহমদ চৌধুরীর নাম কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক জে.কে গউছ সুপারিশ পত্রে স্বাক্ষর করেছেন কী না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন- গউছ সাহেব স্বাক্ষর দেননি।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক জে.কে গউছ “জাগো নিউজ” কে বলেন- নবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের নামের তালিকা কেন্দ্রে পাঠানোর বিষয়ে আমি কিছু জানিনা, আমি মামলার কাজে ঢাকা আদালতে আছি।

এ দিকে গতকাল (১৪ ডিসেম্বর) দুপুর ও বিকেলে কেন্দ্রীয় বিএনপির দলয় কার্যালয়ে নবীগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে দলীয় মনোনয়ন ফরম দাখিল করেছেন নবীগঞ্জ পৌরসভার বর্তমান মেয়র ও পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি ছাবির আহমদ চৌধুরী ও নবীগঞ্জ পৌর বিএনপির ১ম সদস্য আনোয়ার হোসেন মিঠু।


অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
error: কপি করা নিষেধ !
error: কপি করা নিষেধ !