Logo
শিরোনাম :

নবীগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধার ফিশারীতে স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে ক্ষত বিক্ষত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
জাগো নিউজ : বৃহস্পতিবার, মে ২৭, ২০২১

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় রাতের আধারে মুক্তিযোদ্ধার মৎস্য ফিশারীতে অবস্থিত একটি ঘরে ডুকে স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করেছে দুর্বৃত্তরা। আশংকাজনক অবস্থায় স্বামী-স্ত্রীকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

বুধবার দিবাগত গভীর রাতে নবীগঞ্জ উপজেলার গুঙ্গিয়াজুড়ি হাওড়ের নোয়াগাঁও গ্রামের রোক্কা বিলের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহতরা হলেন- উপজেলার গজনাইপুর ইউনিয়নের সাতাইহাল পূর্বপাড়া গ্রামের আব্দুর নূরের ছেলে আবুল মিয়া (২৭) ও আবুলের স্ত্রী ঝারু বেগম (২২)।

জানা যায়, সাতাইহাল গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা নূর উদ্দিন (বীরপ্রতীক) এর মালিকানাধীন মৎস্য ফিশারী উপজেলার গুঙ্গিয়াজুড়ি হাওড়ের নোয়াগাঁও গ্রামের রোক্কা বিলের পাশে অবস্থিত । সেই ফিশারি দেখা শোনা করে আসছিলেন আবুল মিয়া ও ঝারু বেগম। ফিশারীর মধ্যেই একটি ঘরে আবুল ও ঝারু শিশু সন্তানসহ বসবাস করে আসছিলেন।

বুধবার গভীর রাতে আবুল ও ঝারু নিজ ঘরে ঘুমিয়ে ছিল। হঠাৎ করে দাড়াঁলো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ৮-১০ জনের একদল দুর্বৃত্ত তাদের ঘরে হামলা করে। এসময় ঝারু বেগমকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে স্বামী আবুল এতে বাঁধা দেয়। ক্ষিপ্ত হয়ে দুর্বৃত্তরা স্বামী-স্ত্রীকে এলোপাতাড়ি দাড়াঁলো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করে। পরে তাদেরকে মৃত ভেবে দুর্বৃত্তরা চলে যায়।

খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন ও গোপলার বাজার তদন্ত কেন্দ্রের একদল পুলিশ আহত স্বামী-স্ত্রীকে আশংকাজনক অবস্থায় সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। আহত স্বামী-স্ত্রীর মাথা ও শরীরে বিভিন্ন স্থানে দাড়াঁলো অস্ত্রের অসংখ্য আঘাত রয়েছে।

এ ব্যাপারে বীর মুক্তিযোদ্ধা নূর উদ্দিন (বীরপ্রতীক) বাদী হয়ে নবীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

নবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ ডালিম আহমদ বলেন, খবর পাওয়ার সাথে সাথে ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করে। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ
ThemeCreated By ThemesDealer.Com
error: কপি করা নিষেধ !
error: কপি করা নিষেধ !