Logo

নবীগঞ্জে মা-বাবাকে মারপিট, সন্তানের ১৪ মাসের কারাদণ্ড

মতিউর রহমান মুন্না / ৫৯৩ বার পঠিত
জাগো নিউজ : বুধবার, ১৯ আগস্ট, ২০২০

টাকার জন্য বাবা-মাকে মারপিট ও বাড়ির জিনিসপত্র ভাঙচুর করার দায়ে অবাধ্য পুত্র নবীগঞ্জের ফারুক আহমেদকে ১৪ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। পিতার অভিযোগে মঙ্গলবার রাত ১০ টার দিকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে এই আদেশ দেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মহিউদ্দিন।
দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত ফারুক  নবীগঞ্জ উপজেলার পানিউমদা ইউনিয়নের বড়চর গ্রামের আমির উল্যার পুত্র।

সুত্রে জানা যায়, টাকার জন্য প্রায়ই  ফারুক আহমেদ তার  মা-বাবা, ভাই, বোনকে শারিরীক, মানষিক অত্যাচার ও নির্যাতন করতো। তাদের কাছ টাকা থাকলে তা জোরপূর্বক চিনিয়ে নেয়। টাকা না দিলে ঘরের জিনিসপত্র, সম্পদ বিক্রি করাসহ অনেক অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। নবীগঞ্জ থানা পুলিশের সহায়তায় কয়েকবার মীমাংসার চেষ্টা করা হয়েছে। কিন্তু কয়েকদিন পর পরই ফারুক মা-বাবার উপর শুরু করে দেয় অমানুষিক নির্যাতন। গত দুই দিন ধরে আবারো তার মা-বাবাকে মারপিট করে ঘর থেকে বের করে দেয় ফারুক।
অবশেষে বাধ্য হয়ে তার পিতা আমির উল্লা নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর কাছে অভিযোগ দেন।
অভিযোগের প্রক্ষিতে বিষয়টি মীমাংসা করতে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ মহিউদ্দিন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ইজাজুর রহমান ও একদল পুলিশ নিয়ে তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে যান।
সেখানে তাদের উপস্থিতিতেই পিতা-মাতাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও বারবার প্রহারের উদ্দেশে এগিয়ে যায় ফারুক। অবশেষে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ফারুককে দণ্ডবিধি ১৮৬০ এর ৩৫৫ ধারা মোতাবেক ১৪ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন বলে জাগোো.নিউজকে তথ্যটি নিশ্চিত করেন নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মহিউদ্দিন।


অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
error: কপি করা নিষেধ !
error: কপি করা নিষেধ !