Logo
শিরোনাম :
বাউসা ইউনিয়ন পরিষদকে সৌদি দূতাবাস বানিয়ে অভিনব প্রতারণা ॥ আটক ৩ বাহুবলে গাছ খাওয়ায় ছাগল আটক, এমপি কল দেয়ার পরও ছাড়েনি পুলিশ কানাডায় সড়ক দুর্ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধা সুরঞ্জন দাশ স্ত্রীসহ নিহত গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসে বঙ্গমাতা ও শেখ কামাল এর জন্মবার্ষিকী পালন নবীগঞ্জে মায়ের স্বপ্ন পূরণে হেলিকপ্টারে চড়ে বরের বাড়ি গেলেন সুরভী খোঁজ মিলছে না সিলেট ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক সভাপতির এবার মাল্টার ভিসা মিলবে ঢাকা থেকেই! গ্রিসে ১৫ হাজার অনিয়মিত বাংলাদেশি যেভাবে পাবেন বৈধতা! নবীগঞ্জ-হবিগঞ্জ রুটে বাস চলাচল বন্ধ, যাত্রীদের ভোগান্তি : চালু হবে কবে ! তুর্কি থেকে গ্রিসে অনুপ্রবেশ: দুর্ঘটনায় সিলেটের কওছর মেম্বার নিহত, আহত ৩

নতুন কৌশলে বিকাশে প্রতারণা!

জাগো নিউজ
জাগো নিউজ : সোমবার, মে ২৫, ২০২০

করেসপন্ডেন্ট, জাগো নিউজ :: কোন ফোন বা ম্যাসেজ নয়, এবার নতুন কৌশলে ডিজিটাল প্রতারক সক্রিয় হয়ে ওঠেছে বেশ কিছু প্রতারক চক্র।

ঈদকে টার্গেট করে তারা কৌশলে সাধারণ মানুষকে বোকা বানিয়ে বিভিন্ন বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।

নতুন এসব প্রতারক চক্র থেকে সাবধান থেকেও কাজ হচ্ছে না। নতুন প্রতারণার কৌশলে গ্রাহক বুুঝতেই পারেন না টাকা খোয়ানোর বিষয়টি।

এখন আর মোবাইল ব্যাংকিংয়ের গোপন নম্বরসহ ব্যক্তিগত তথ্য লাগে না। অটো সেন্টমানি হয়ে যাচ্ছে প্রতারকদের নম্বরে। এক্ষেত্রে কোন ম্যাসেজও আসছে না। ফলে অনেক গ্রাহকের মাথায় হাত পড়েছে।

এমনই ঘটনা ঘটেছে হবিগঞ্জে। গত শনিবার (01861-443333) এজেন্ট নম্বর থেকে (01727-159210) নম্বরে এক আত্মীয়ের জন্য দুই হাজার টাকা পাঠান এক ব্যক্তি। যার নম্বরে পাঠান ওই নম্বরের মালিক রাতে বিকাশ এর দোকান খোলা না পেয়ে রবিবার টাকা তুলবেন ঠিক করেন।

রবিবার দুপুর ১ টা নাগাদ তিনি দোকানে যান টাকা তুলতে। তখন তিনি দেখতে পান টাকা নেই। টাকা সেন্টমানি হয়ে গেছে দুপুর ১১.৪৬ মিনিটে 01639-572681 নম্বরে।

তখন তিনি চিন্তিত হয়ে পড়েন। পরে বিকাশের জরুরি নম্বরে কল দিলেও কেউ ধরেনি। আর হবিগঞ্জে স্থানীয় বিকাশ এজেন্ট বন্ধ থাকায় সম্ভব হয়নি। এদিকে 01727-159210 থেকে 01639-572681 নম্বরে কল দিলে নম্বরটি চালু পাননি।

অনেকেই বলেন, কেউ ফোন করবে ‘হ্যালো! বিকাশ/র‌কেট থেকে বলছি। আপনার অ্যাকাউন্টে একটু সমস্যা হয়েছে। এটি বন্ধ করে দেয়া হবে। সঠিক তথ্য দিতে পারলে আপনার অ্যাকাউন্টটি সচল রাখা হবে।’ এরপরই ভোটার আইডি কার্ডের নাম, নম্বর, পিতার নাম জানতে চাইলেন। এরপরই বললেন, আপনার নম্বরে একটি মেসেজ গেছে। পিন নম্বরটি বলুন। এরপর পিন নম্বর দিলেই সর্বনাশ।

কিংবা মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস (এমএফএস) বা মোবাইল ব্যাংকিং সেবা দেয়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান বিকাশ, রকেট, ইউক্যাশ, শিওর ক্যাশ এর নামে ওয়েবসাইট খুলে অর্থ হাতিয়ে নিতে বিভিন্ন ফাঁদ তৈরি করছে প্রতারকরা।

কিন্তু এ ক্ষেত্রে কিছুই হয়নি। কেউ কেউ বলছেন, বিকাশের সাথে জড়িত কেউ এমন করতে পারে। আবার সিম ক্লোন হতে পারে।

তবে যে যাই বলুক বিকাশের নামে এমনই এক নতুন ফাঁদ তৈরি করেছে একটি প্রতারক চক্র।

যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এমন সব ফাঁদ পেতেছে বেশ কিছু সংঘবদ্ধচক্র। তাই তাদের কাছ থেকে সাবধান হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে এমএফএস সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো।

এসব প্রতারকদের কাছ থেকে সাবধান হওয়ার পরামর্শ দিলেও ব্যবস্থা না নেয়ায় প্রতারণা বাড়ছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !