Logo
শিরোনাম :
বাহুবলে নির্বাচনী গণসংযোগে ছুরিকাঘাতে যুবকের মৃত্যু হারিছ চৌধুরী লন্ডনে নয়, মারা গেছেন ঢাকায়, জানালেন ব্যারিস্টার কন্যা সামিরা দিনারপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা ও খেলাধুলার সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠিত নবীগঞ্জ শহরকে যানজট মুক্ত করতে এমপি’র অ্যাকশন পূবালী ব্যাংক গজনাইপুর শাখার ব্যবস্থাপকের বিদায় ও বরণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে হঠাৎ আগুন ! নবীগঞ্জে ট্রাকের চাকা ফেটে রিং ছিটকে পড়ে যুবকের মৃত্যু ওমিক্রন ভ্যারিয়েন্টের হটস্পট ঢাকা এমপি মিলাদ গাজীর প্রচেষ্ঠায় চালু হচ্ছে সাটিয়াজুরি রেল স্টেশন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

গ্রিসে নৌকাডুবি: ৪ অভিবাসী শিশু নিহত, জীবিত উদ্ধার ২২

মতিউর রহমান মুন্না, গ্রিস থেকে
জাগো নিউজ : বুধবার, অক্টোবর ২৭, ২০২১

তুরস্ক উপকূলে অবস্থিত গ্রিক দ্বীপ চিওসের কাছে এজিয়ান সাগরে একটি নৌকা বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় উদ্ধার অভিযান সত্ত্বেও চার শিশু মারা গেছে এবং ৭ জন মহিলা ও এক শিশু সহ ২২ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত বা উদ্ধারকৃতদের মধ্যে বাংলাদেশি কোন অভিবাসী ছিল কি না তা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

ইনফোমাইগ্রেন্টস সূত্রে জানা যায়, এজিয়ান সাগরে মঙ্গলবার তুরস্ক উপকূলের নিকটে চিওস দ্বীপের কাছেই নৌকাটি ডুবে যায়। এই অভিবাসী নৌকা ডুবিতে চার শিশু মৃত্যুর ঘটনায় তুরস্ককে দায়ী করেছে গ্রিস।

গ্রিক অভিবাসন মন্ত্রী নোটিস মিতারাছি টুইটারে দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, “এটি দুঃখজনক কিন্তু গ্রিক কোস্ট গার্ডের সমস্ত প্রচেষ্টা সত্ত্বেও, ৩ থেকে ১৪ বছর বয়সি চার শিশুর মৃত্যু ঘটেছে। ২২ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে এবং তাদের মূল ভূখণ্ডে পৌঁছানোর জন্য যাবতীয় দায়িত্ব নেওয়া হয়েছে।”

তিনি আরও যোগ করেন, ‘‘মূল উৎস থেকে অপরাধী চক্রের দ্বারা অভিবাসীদের শোষণ রোধ করতে তুর্কি কর্তৃপক্ষকে আরও বেশি পদক্ষেপ নিতে হবে। এই সীমান্ত পারাপারগুলো আর ঘটতে দেয়া যায় না।”
তিনি মানুষের জীবনকে হুমকিতে ফেলা অসাধু পাচারকারীদেরও নিন্দা করেন।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উঠে আসা ছবি এবং ভিডিওতে দেখা গেছে উদ্ধার অভিযানের সময় সমুদ্র বেশ রুক্ষ ছিল। এজিয়ান সাগরের এই এলাকায় ন্যাটোর একটি জাহাজ, দুটি হেলিকপ্টার এবং আরও কয়েকটি নৌযানের সহায়তায় গ্রিক কোস্টগার্ড এই উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করেছে। উদ্ধারকৃত ২২ জনের মধ্যে ১৪ জন পুরুষ, ৭ জন মহিলা এবং একটি শিশু রয়েছে।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর এর বক্তব্য অনুসারে, প্রতিবেশী তুরস্ক থেকে এই বছর ২,৫০০ এরও বেশি লোক এজিয়ান সাগর পাড়ি দিয়েছে, যেটি ২০২০ সালে ছিল ৯,৭০০ জন। ২০২০ সালে ১০০ জনেরও বেশি মানুষ এজিয়ান সাগরে মৃত্যু ঘটেছে বা নিখোঁজ হয়েছে বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ
ThemeCreated By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !