Logo
শিরোনাম :
২৪ ঘন্টায় করোনায় ৫৪ মৃত্যু : শনাক্ত ৩ হাজারের বেশি চারদিনেও হদিস মেলেনি ‘ইসলামী বক্তা’ আবু ত্ব-হা আদনানের দল ব্যবস্থা নিলেও আমি নির্বাচন করবো – শফি আহমদ চৌধুরী নবীগঞ্জে স্বামী-স্ত্রী’কে কোপানোর মামলায় ৫ আসামীর জামিন নামঞ্জুর পরীমনির মামলার প্রধান আসামি নাসিরসহ পাঁচজন গ্রেফতার পরীমনিকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা : সংবাদ সম্মেলন নবীগঞ্জে বাবা-মাকে নির্যাতন : ছেলের ১ বছরের কারাদণ্ড ‘মাজারের টাকা সুরক্ষা দিচ্ছে অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের আসামীদের’ – ব্যারিস্টার সুমন নোয়াগাঁও তাণ্ডব : ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে উপজেলা বিএনপি নোয়াগাঁও’র ১৩টি বাড়ি-ঘরে লুটপাট ও অগ্নিসংযোগকারীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন

এমপি আবু জাহিরকে তাক লাগানো সংবর্ধনা দিল গোপায়া ইউনিয়নবাসী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
জাগো নিউজ : রবিবার, নভেম্বর ২৯, ২০২০

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী হবিগঞ্জে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ও শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ বাস্তবায়ন করায় হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মোঃ আবু জাহিরকে ব্যতিক্রমধর্মী সংবর্ধনা দিয়েছে সদর উপজেলার গোপায়া ইউনিয়নবাসী। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ব্যানারে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে দলমত নির্বিশেষে পাঁচ সহশ্রাধিক জনতার ঢল নামে।

রোববার দুপুরে সংসদ সদস্যের বাসভবনের সামনে থেকে সহশ্রাধিক মোটরসাইকেলে শোডাউন করে তাকে নিয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে ছাত্র-জনতা। পরে শিরিষতলা থেকে সংবর্ধিত ব্যক্তিকে ঘোড়ার গাড়ি দিয়ে প্রায় এক কিলোমিটার দীর্ঘ শোভাযাত্রার মাধ্যমে সংবর্ধনাস্থলে নিয়ে অভ্যর্থনা জানান আয়োজকরা।

শোভাযাত্রার অগ্রভাগে ছিল বর্ণাঢ্য সাজের একটি হাতি। তখন ব্যতিক্রমধর্মী আয়োজন দেখতে জেলা শহরের চৌধুরী বাজার থেকে গোপায়া ইউনিয়নের ভাদৈয়ে সংবর্ধনাস্থল পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশে বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ দলে দলে ভীড় করেন। শোভাযাত্রাটি ২ নম্বর পুল এলাকায় যাওয়ার পরই অনুষ্ঠানের সুসজ্জিত ২৫টি তোরণ অতিক্রম করেন এমপি আবু জাহির। বর্ণাঢ্য এই শোভাযাত্রার মুহুর্তগুলো ধারণা করা হয় আকাশে উড়ানো ড্রোন ক্যামেরা থেকে।

বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহর প্রদক্ষিণ শেষে যখন এমপি আবু জাহির বিকেল ৩টার দিকে ভাদৈ আইডিয়াল হাইস্কুলের সামনে ঘোড়ার গাড়ি থেকে নামেন তখন তিনি লাল গালিচায় হেটে মঞ্চের দিকে অগ্রসর হন। এ সময় উভয় দিক থেকে ব্যান্ডপার্টির সুরের মুর্চনায় ফুল ছিটিয়ে তাকে বরণ করেন সবাই। মঞ্চে উঠার আগেই কানায় কানায় পূর্ণ থাকে প্যান্ডেল। এরই মাঝে বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে বর্ণাঢ্য সাজে এবং ভুভুজেলা বাশির শব্দের সাথে নানা ধরণের শ্লোগানে অনুষ্ঠানস্থলে প্রবেশ করেন নেতাকর্মীলা। অগ্রভাগে ব্যানার থাকলেও ফুল দিয়ে তৈরী আকর্ষণীয় নৌকা দৃষ্টি কাড়ে সবার।

এরপর দুই শতাধিক সংগঠন, প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিগত উদ্যোগে ফুলের তোড়া এবং মালা দিয়ে তাকে বরণ করা হয়। ফুলেল শুভেচ্ছা ও অনেকগুলো সম্মাননা স্মারক দিতে ঘড়ির কাটা তখন পৌনে পাঁচটার দিকে। সেজন্য ছোট করা হয় বক্তৃতার তালিকা। সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় হবিগঞ্জে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ বাস্তবায়নসহ শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও অবকাঠামোসহ এমপি আবু জাহিরের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় অভাবনীয় উন্নয়ন কর্মকান্ডের কথা তুলে ধরেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বিশেষ অতিথি মোঃ আলমগীর চৌধুরী।

এরপর প্রধান অতিথির বক্তৃতার সময় জনস্রোত দেখে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন এমপি আবু জাহির। তিনি বলেন, গোপায়া ইউনিয়নকে আমি আমার দ্বিতীয় বাড়ি মনে করি। আপনারা আমাকে বার বার যে ভালবাসা দেখিয়েছেন তার প্রতিদান আমি দিতে পারব না। তবে দিনরাত আপনাদের জন্য কাজ করে যাচ্ছি। আপনারা নৌকায় ভোট দিয়ে আপনাদের দায়িত্ব পালন করেছেন। আমিও আমৃত্যু আপনাদের মাঝে থেকে আপনাদেরই একজন হয়ে কাজের মাধ্যমে আমার দায়িত্ব পালন করে যাব ইনশাল্লাহ।
তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন আমার দাবির পরিপ্রেক্ষিতে হবিগঞ্জে শেখ হাসিনা মেডিক্যাল কলেজ ও কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তখন অনেকেই মন্তব্য করতে থাকেন; এমপি আবু জাহির নাঠক সৃষ্টি করেছে। এগুলো কখনও সম্ভব না। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ আমি প্রমাণ করে দিয়েছি বঙ্গবন্ধু কন্যা যা বলেন, তাই করেন। আজকে অভাবনীয় এ দু’টি প্রতিষ্ঠান আপনাদের সামনে দৃশ্যমান।

আবু জাহির বলেন, দুস্কৃতিকারীরা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে দেশের চরম ক্ষতি করেছে। এরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা করেছে ১৯ বার। কিন্তু মহান সৃষ্টিকর্তা তাঁকে বাঁচিয়ে রেখেছেন। জাতির পিতার কন্যার নেতৃত্বে দেশ এখন এগিয়ে যাচ্ছে। আপনাদের ভাগ্যের উন্নয়ন হচ্ছে।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আমরা পেয়েছি স্বাধীন বাংলাদেশ, পেয়েছি ভাষার অধিকার। আজ দেশে মহান এই নেতার প্রতিকৃতি স্থাপন নিয়েও ষড়যন্ত্র চলছে। এরা দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে চায়। তখন তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে সকলকে সতর্ক থাকার আহবান জানান এমপি আবু জাহির। তিনি গোপায়া ইউনিয়নবাসীকে সামনে থেকে সব বিষয়ে বক্তৃতা দেয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, হবিগঞ্জে আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠা করেছেন গোপায়া ইউনিয়নবাসী। আবারও আমরা গোপায়া ইউনিয়নকে আওয়ামী লীগের দুর্গ বানাতে চাই। হবিগঞ্জ সদর উপজেলার সদর ইউনিয়ন হল গোপায়া। তাই সকল বিষয়েই এখান থেকে নেতৃত্ব বেড়িয়ে আসুক, সেটাই আমরা কামনা করি।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি সদস্য জালাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক বশির আহমেদ ভিংরাজের পরিচালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরও বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা জেলা যুবলীগের সভাপতি আতাউর রহমান সেলিম, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান শামীম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নূর উদ্দিন চৌধুরী বুলবুল, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা অ্যাডভোকেট আব্দুল মোছাব্বির বকুল, অ্যাডভোকেট শাহ ফখরুজ্জামান, হাবিবুর রহমান খান, অ্যাডভোকেট আজিজুর রহমান খান সজল, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এমএ মোত্তালিব, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, জেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বিপ্লব রায় চৌধুরী, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাইদুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মহিবুর রহমান মাহি, পৌর যুবলীগের সভাপতি ডাঃ ইসতিয়াক রাজ চৌধুরী, রোটারিয়ান এমএ রাজ্জাক, অধ্যক্ষ রফিক আলী।

আরও উপস্থিত ছিলেন গোপায়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আক্তার হোসেন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নূরুজ্জামান চৌধুরী, আব্দুল মুকিত, আব্দুল মালেক ইদু, জাকারিয়া চৌধুরী, জাহির আহমেদ, শেখ সেবুল আহমেদ, সাব্বির আহমেদ রনি, রিয়াজ উদ্দিন জুনেদ, গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী সুজাত, আফিফ আহমেদ নাইম, আক্তার হোসেন, সালেহ আহমেদ চৌধুরী, সেলিম আহমেদ, আলমগীর আলম, আব্দুল গনি, বখতিয়ার জালাল, ফজল মেম্বার, অনু মেম্বার প্রমুখ।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই এমপি আবু জাহিরকে ফুলের তোড়া দিয়ে শুভেচ্ছা জানায়- ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ, সংবর্ধনা বাস্তবায়ন কমিটি, আইডিয়াল হাইস্কুল, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যবৃন্দ, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ, ৯টি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ, কবির কলেজিয়েট একাডেমী, অ্যাডভোকেট আবু জাহির উচ্চ বিদ্যালয়, ধুলিয়াখাল আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, নুরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, বহুল মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সদর উপজেলা যুবলীগ, সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ, সদর উপজেলা ছাত্রলীগ, সদর উপজেলা কৃষক লীগ, সদর উপজেলা শ্রমিক লীগ, গোপায়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, শ্রমিক লীগ, আনন্দপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পশ্চিম ভাদৈ দারুল কোরআন হাফিজিয়া মাদ্রাসা, আলাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভাঙ্গারপুল বায়তুল আমান জামে মসজিদ কমিটি, যাত্রাবড়বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোপায়া ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদ, আনন্দপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাঙ্গেরগাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, গোপায়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব ভাদৈ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, তেতৈয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পশ্চিম ভাদৈ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নুরুন্নেছা মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ধুলিয়াখাল আদর্শ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়সহ দুই শতাধিক প্রতিষ্ঠান। এছাড়া বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দও পৃথকভাবে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ
ThemeCreated By ThemesDealer.Com
error: কপি করা নিষেধ !
error: কপি করা নিষেধ !