Logo

ইউপি সদস্য রাজা মিয়ার বিরুদ্ধে গর্ভকালীন ভাতায় নাম দেয়ার কথা বলে টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ

জাগো নিউজ
জাগো নিউজ : মঙ্গলবার, আগস্ট ২৫, ২০২০

image_pdfimage_print

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার বাউসা ইউনিয়ন পরিষদের ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার আব্দুল করিম রাজা মিয়ার বিরুদ্ধে গর্ভকালীন ভাতায় নাম দেয়ার নামে আড়াই হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। টাকা দেয়ার পরও পরও গর্ভকালীন ভাতার তালিকায় নাম উঠেনি ওই ইউনিয়নের বাশডর গ্রামের ছইফা বেগমের।

এমন অভিযোগের প্রতিকার চেয়ে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগী ওই মহিলা।

গত ২৫ আগস্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন বাউসা ইউনিয়নের বাশডর গ্রামের আকবর মিয়ার স্ত্রী ছইফা বেগম।

অভিযোগের বিবরণে জানা যায়, ১বছর পূর্বে অসহায় ছইফা বেগমের কাছ থেকে গর্ভকালীন ভাতার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত করবেন বলে খরচ বাবদ আড়াই হাজার টাকা নেন স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল করিম রাজা মিয়া।
কিন্তু দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও গর্ভকালীন ভাতার তালিকায় নাম উঠেনি ছইফা বেগমের।
ভাতার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত না হওয়া ইউপি সদস্য রাজা মিয়ার কাছে টাকা ফেরত চান ভুক্তভোগী মহিলা।
কিন্তু তিনি টাকা না দেয়ায় ভুক্তভোগী ছইফা বেগম স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিকে বিষয়টি অবহিত করেন।
অবশেষে এমন ঘটনার প্রতিকার চেয়ে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী ছইফা বেগম।

নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শেখ মহিউদ্দিন অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !