Logo
শিরোনাম :
করগাঁওয়ে এবার নৌকার মাঝি বজলুর রহমান নবীগঞ্জ সদর ইউনিয়নে নৌকার মনোনয়ন পেলেন হাবিব গজনাইপুরে দলীয় মনোনয়ন: মুকুল আউট, সাবের ইন! পানিউমদায় এবারও নৌকা পেলেন বর্তমান চেয়ারম্যান ইজাজুর নবীগঞ্জে নৌকা পেলেন যারা দেবপাড়া ইউনিয়নে আ.লীগের মনোনয়ন পেতে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই : প্রচারনায় স্বতন্ত্র প্রার্থী গ্রিসে বাংলাদেশিদের অপ্রত্যাশিত মৃত্যু বাড়ছে, বেশির ভাগ মৃত্যুর কারণ হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক দেবপাড়া ইউপিতে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নুরুল শরীফের দলীয় ফরম দাখিল নবীগঞ্জে যুবকের লাশ উদ্ধার, খুলছে না রহস্যের জট! দুইগ্রামের সাথে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নুরুল শরীফ হুদার মতবিনিময়

ইউপি ভবনের প্রতিষ্ঠাতা দাবী করে নামফলক স্থাপন : সংবাদ প্রকাশের পর অপসারণ

করেসপন্ডেন্ট,নবীগঞ্জ
জাগো নিউজ : শনিবার, জুলাই ৪, ২০২০

‘জাগো নিউজ’ এ সংবাদ প্রকামের পর হবিগেঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার পূর্ব বড় ভাকৈর ইউনিয়নের নব- নির্মিত গেইটে ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আশিক মিয়া এর নামে ভবন প্রতিষ্ঠাতা দাবী করে টানানো নাম ফলক সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

শনিবার সকাল থেকে এই নাম ফলক গেইটে আর দেখা যায়নি। বিতর্কিত এই নাম ফলক সরিয়ে ফেলায় এলাকায় স্বস্তির নিশ্বাঃস ফিরেছে জনসাধারনের মনে।

এদিকে একটি সূত্রে জানা যায়, বিতর্কিত এই নাম ফলক টানানো নিয়ে ‘জাগো নিউজ’ সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে বিষয়টি নজরে আসে স্থানীয় প্রশাসনের। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিত কুমার পাল বিতর্কিত এই নাম ফলক দ্রুত সরিয়ে ফেলার জন্য ইউপি চেয়ারম্যান আশিক মিয়াকে নির্দেশ প্রদান করেন। এরই প্রেক্ষিতে ফলকটি অপসারন করা হয়।

উল্লেখ্য যে ১৯৯৬ সালে আওয়ামিলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পরে সারা বাংলাদেশে স্থানীয় সরকারের অধীনে প্রত্যেকটি ইউনিয়ন পরিষদের স্থায়ীভাবে ভবন নির্মানের উদ্যোগ গ্রহণ করে এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৭ সালে বড় ভাকৈর পূর্ব ইউনিয়নের ভবন নির্মিত হয় এদিকে হঠাৎ গ্রামীণ উন্নয়নের বরাদ্দে নব-নির্মিত গেইটে নিজের নামে ভবন প্রতিষ্ঠা দাবী করে একটি বিতর্কিত নাম ফলক টানান উক্ত পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক মিয়া এরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ এলাকার সর্বত্র চলে আলোচনা সমালোচনার ঝড়। এদিকে নাম ফলক সরিয়ে ফেলার নির্দেশ প্রদান করায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন স্থানীয় ইউনিয়নের জনসাধারণ।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ‘জাগো নিউজ’কে জানান, ঘটনা জানার পর তাৎক্ষনিক ভাবে চেয়ারম্যান আশিক মিয়াকে ফলকটি সরানোর নির্দেশ দিলে শনিবার সকালেই তিনি অপসারন করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ
ThemeCreated By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !