Logo
শিরোনাম :
খুলনায় নিখোঁজ সেই রহিমা বেগমকে জীবিত উদ্ধার সবুজকুঁড়ি শিল্পী গোষ্ঠীর দুই ইসলামী সাংস্কৃতিক যোদ্ধার প্রবাস গমন গ্রিসে বাংলাদেশি শিল্পীদের চিত্র প্রদর্শনী কালিয়ারভাঙ্গা ডিজিটাল সেন্টারে হামলার ঘটনায় নিন্দা ও প্রতিবাদ নবীগঞ্জে পিতার লাশ দাফন করে এসএসসি পরীক্ষা দিল রুহান নিরাপদ ও স্বাভাবিক প্রাতিষ্ঠানিক প্রসবে দেশে ষষ্ঠ স্থানে হবিগঞ্জ নবীগঞ্জে আ.লীগ-বিএনপির পাল্টাপাল্টি সমাবেশ : ১৪৪ ধারা জারি নবীগঞ্জে গ্রীনলাইন-শ্যামলী পরিবহনের বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ ॥ আহত অর্ধশতাধিক নবীগঞ্জে নিখোঁজের ৩ দিন পর নদীতে পাওয়া গেলো শিশুর মরদেহ সাংবাদিক সুলতানের উপর হামলাকারীদের গ্রেফতার করতে ২৪ ঘন্টার আল্টিমেটাম

ইউপি ভবনের প্রতিষ্ঠাতা দাবী করে নামফলক স্থাপন : সংবাদ প্রকাশের পর অপসারণ

করেসপন্ডেন্ট,নবীগঞ্জ
জাগো নিউজ : শনিবার, জুলাই ৪, ২০২০

‘জাগো নিউজ’ এ সংবাদ প্রকামের পর হবিগেঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার পূর্ব বড় ভাকৈর ইউনিয়নের নব- নির্মিত গেইটে ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আশিক মিয়া এর নামে ভবন প্রতিষ্ঠাতা দাবী করে টানানো নাম ফলক সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

শনিবার সকাল থেকে এই নাম ফলক গেইটে আর দেখা যায়নি। বিতর্কিত এই নাম ফলক সরিয়ে ফেলায় এলাকায় স্বস্তির নিশ্বাঃস ফিরেছে জনসাধারনের মনে।

এদিকে একটি সূত্রে জানা যায়, বিতর্কিত এই নাম ফলক টানানো নিয়ে ‘জাগো নিউজ’ সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হলে বিষয়টি নজরে আসে স্থানীয় প্রশাসনের। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিশ্বজিত কুমার পাল বিতর্কিত এই নাম ফলক দ্রুত সরিয়ে ফেলার জন্য ইউপি চেয়ারম্যান আশিক মিয়াকে নির্দেশ প্রদান করেন। এরই প্রেক্ষিতে ফলকটি অপসারন করা হয়।

উল্লেখ্য যে ১৯৯৬ সালে আওয়ামিলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পরে সারা বাংলাদেশে স্থানীয় সরকারের অধীনে প্রত্যেকটি ইউনিয়ন পরিষদের স্থায়ীভাবে ভবন নির্মানের উদ্যোগ গ্রহণ করে এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৯৭ সালে বড় ভাকৈর পূর্ব ইউনিয়নের ভবন নির্মিত হয় এদিকে হঠাৎ গ্রামীণ উন্নয়নের বরাদ্দে নব-নির্মিত গেইটে নিজের নামে ভবন প্রতিষ্ঠা দাবী করে একটি বিতর্কিত নাম ফলক টানান উক্ত পরিষদের চেয়ারম্যান আশিক মিয়া এরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ এলাকার সর্বত্র চলে আলোচনা সমালোচনার ঝড়। এদিকে নাম ফলক সরিয়ে ফেলার নির্দেশ প্রদান করায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন স্থানীয় ইউনিয়নের জনসাধারণ।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিত কুমার পালের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ‘জাগো নিউজ’কে জানান, ঘটনা জানার পর তাৎক্ষনিক ভাবে চেয়ারম্যান আশিক মিয়াকে ফলকটি সরানোর নির্দেশ দিলে শনিবার সকালেই তিনি অপসারন করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

অন্যান্য সংবাদ
Theme Created By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !