Logo
শিরোনাম :
দুইগ্রামের সাথে আ.লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী নুরুল শরীফ হুদার মতবিনিময় নবীগঞ্জে পূজা মন্ডপে পূজারী ও মাদ্রাসা ছাত্রদের সংঘর্ষ : ওসিসহ আহত ২০ গ্রিসে ১৭ অক্টোবরের পরিবর্তে আগামী ২৪ অক্টোবর ‘বাংলাদেশ উৎসব ২০২১’ নবীগঞ্জসহ ১ হাজার ৭টি ইউনিয়নে ভোট ২৮ নভেম্বর বৃহস্পতিবার থেকে স্কুল শিক্ষার্থীদের পরীক্ষামূলক টিকা দেয়া হবে ৫০ মামলায় বাবা-মা জিম্মায় ৭০ শিশু তরুণ উদ্যোক্তা ও ডিজিটাল মার্কেটিংয়ে সফল হতে চান পার্থ নবীগঞ্জে ২ হাজার মিটার কারেন্টজাল ধ্বংস নবীগঞ্জে স্কুলছাত্রীকে উত্যক্ত করার দায়ে বখাটের ৬ মাসের কারাদণ্ড মিথ্যা অভিযোগ দেয়ায় সুমনের ক্ষমা প্রার্থনা ও দুঃখপ্রকাশ

অস্ত্রোপচারে শেষ এ বছর : ফেদেরার তাকিয়ে সামনের বছরে

স্পোর্টস ডেস্ক
জাগো নিউজ : বুধবার, জুন ১০, ২০২০

করোনাভাইরাসের কারণে ফ্রেঞ্চ ওপেন পিছিয়ে শুরু হওয়ার কথা সেপ্টেম্বরে, উইম্বলডন তো বাতিলই হয়ে গেছে। আগস্টের শেষ থেকে শুরু হয়ে সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি পর্যন্ত হওয়ার সম্ভাবনা এখনও ঝুলিয়ে রেখেছে ইউএস ওপেন। তবে রাফায়েল নাদাল এবং নোভাক জোকোভিচ জানিয়ে দিয়েছেন এই গ্র্যান্ড স্লামে অংশ নেওয়ার ইচ্ছে তাদের নেই।

নাদাল আন্তর্জাতিক টেনিসটা আরও পরে শুরু করার পক্ষে, আর জোকোভিচ এত কঠিন স্বাস্থ্যবিধি মেনে ইউএস ওপেনে খেলেতে আগ্রহী নন। রজার ফেদেরারের মূল ইচ্ছেটা কী ছিল সেটি অবশ্য আর জানারই দরকার নেই। হাঁটুতে আরেকটি অস্ত্রোপচার করিয়ে ২০২০ সালে কোর্টে নামার সম্ভাবনা একেবারেই শেষ করে দিয়েছেন তিনি।

বুধবার ফেদেরার জানিয়েছেন, তাঁর ডান হাঁটুতে আরেকটি অস্ত্রোপচার হয়েছে, প্রথমটি হয়েছিল গত ফেব্রুয়ারিতে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের সেমিফাইনালে জোকোভিচের সঙ্গে খেলতে গিয়ে। চোট নিয়ে সেমিফাইনালটা ঠিকমতো খেলতে পারেননি আবারও অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জয়ের দাবি জানিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করা সুইস তারকা। টুইট করেছেন, ‘মাত্রই কয়েক সপ্তাহ আগে আমার পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্যেই একটা দুর্ঘটনা ঘটে যায়, যার জন্য খুব দ্রুতই ডান হাঁটুতে অতিরিক্ত আর্থ্রোস্কোপিক ব্যবস্থা নিতে হয়েছে আমাকে।’

আগামী আগস্টে ৩৯ বছরে পা দেবেন সর্বোচ্চ ২০টি গ্র্যান্ড স্লামজয়ী তারকা। তবে ভাববেন না এই বয়সে পর পর দুটি অস্ত্রোপচার তাকে সামনে এগিয়ে যাওয়ার জন্য হতোদ্যম করছে। ফেদেরার ওই টুইটেই করোনাভাইরাসের এই সময়টাতে ভক্তদের সুস্থ ও সুরক্ষিত জীবন কামনা করে লিখেছেন, ‘২০১৭ মৌসুমে যেমনটি করতে পেরেছিলাম, তেমনটা করতেই আমাকে সর্বোচ্চ স্তরে খেলতে হবে আর প্রয়োজনীয় সময়ের মধ্যে আমাকে হতে হবে শতকরা ১০০ ভাগ প্রস্তুত। আমি আমার ভক্তদের খুব মিস করবো। তবে ২০২১ সালে আবার সবার সঙ্গে দেখা হবে কোর্টে।’

নিজের ক্যারিয়ারের ২০১৭ মৌসুমটির প্রসঙ্গ টেনে আনার কারণ আছে ফেদেরারের। ওই মৌসুমে তিনি প্রায় পাঁচ বছরের গ্র্যান্ড স্লাম বন্ধ্যাত্ব ঘুচিয়ে জেতেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। পরে জেতেন উইম্বলডন। ২০১৬ সালে হাঁটুর চোটের পর অস্ত্রোপচার করিয়েছিলেন, তাতে ওই মৌসুমের দ্বিতীয়ভাগে আর কোর্টে নামা হয়নি। কিন্তু ২০১৭ সালের কোর্টে যেন দেখা যায় অন্য এক ফেদেরারকে, অস্ট্রেলিয়ান ওপেন ও উইম্বলডন জেতেন সে তো আগেই বলা হয়েছে। ২০১৮ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেনও জেতেন, গত বছর আরেকটি শিরোপার কাছাকাছি গিয়ে হেরেছেন উইম্বলডনে।

২০১৬ সালের অস্ত্রোপচার তার কাছে যেন ছিল নতুন জ্বালানি ভরে নেওয়া, এবারের অস্ত্রোপচার কি ৩৯ বছর বয়সে ফেদেরারের ভেতরের শেষ আগুনটা বের করে আনবে?


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

অন্যান্য সংবাদ
ThemeCreated By ThemesDealer.Com
x
error: কপি করা নিষেধ !
x
error: কপি করা নিষেধ !